শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২
Home Blog

সুইস রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলেছেন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন

‘সুইস ব্যাংকে অর্থ জমা নিয়ে নির্দিষ্ট করে সুইজারল্যান্ড সরকারের কাছে বাংলাদেশ সরকার সুনির্দিষ্ট কো‌নো তথ্য চায়‌নি’, ঢাকায় নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ডের এ বক্তব্য সত্য নয়। রাষ্ট্রদূত মিথ্যা কথা বলেছেন দাবি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সাংবাদিকরা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে জানতে চান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এবং এনবিআরের অনেক কর্মকর্তা বলেছেন, সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের টাকার পরিমাণ বাড়ছে। সুইস ব্যাংকের কাছে বাংলাদেশ সরকার তথ্য চাইলেও তারা দেয়নি। কিন্তু তাদের রাষ্ট্রদূত বলছেন, বাংলাদেশ সরকার নির্দিষ্ট করে তথ্য চায়নি। জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেটা মিথ্যা কথা বলেছেন। আমাকে সেটা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর এবং ফিন্যান্স সেক্রেটারি বলেছেন। তারা আমাকে বলেছেন, তারা আগে তথ্য চেয়েছেন। যার বিপরীতে সুইজারল্যান্ড কোনো উত্তর দেয়নি।

মোমেন বলেন, আমি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে জিজ্ঞেস করেছি; তারা বলেছেন, নো, আমরা আগেই তথ্য চেয়েছি তারা কোনো রেসপন্স করেনি। আমি বলেছি, তাহলে আপনি এটা পাবলিককে জানিয়ে দিন। কারণ এ রকম মিথ্যা কথা বলে পার পাওয়া উচিত নয়। রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য মিথ্যা হলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুইস দূতাবাসে যোগাযোগ করবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমাদের গভর্নর কিংবা অর্থ মন্ত্রণালয় আগে একটি স্টেটমেন্ট দিক তারপর আমরা তাদের বলব।

উল্লেখ্য, বুধবার ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের (ডিকাব) এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকরা সুইস রাষ্ট্রদূতের কাছে জানতে চান, অর্থ পাচারের তথ্য চেয়ে সরকার কোনো অনুরোধ করেনি? জবাবে রাষ্ট্রদূত জানান, এরকম সুনির্দিষ্ট কোনো অনুরোধ তারা পাননি।

রাষ্ট্রদূত জানান, আন্তর্জাতিক মান অনুসরণ করতে সুইজারল্যান্ড প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী এ ধরনের তথ্য কোনো রাষ্ট্রের সঙ্গে বিনিময়ের জন্য আমাদের কিছু নিয়ম এবং চুক্তি আছে। সুতরাং আমাদের এরকম কোনো প্রক্রিয়া বের করতে হবে। এ বিষয়ে আমরা সরকারের সঙ্গে কাজ করতে পারি।

এদিকে বৃহস্পতিবার সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে অর্থ জমা নিয়ে নির্দিষ্ট করে দেশটির সরকারের কাছে বাংলাদেশ সরকার কো‌নো তথ্য কেন চায়‌নি, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী রোববারের মধ্যে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে তা জানাতে বলা হয়েছে। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন।

বেটউইনারের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করলেন সাকিব

বেটউইনার না ছাড়লে দল থেকে বাদ সাকিব : পাপন

সাকিব আল হাসানকে নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটে যে অস্বস্তিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, তা কাটতে যাচ্ছে। ক্রিকেট বোর্ডের কড়া হুঁশিয়ারির পর বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রথমে মৌখিকভাবে বেটউইনারের সঙ্গে চুক্তি বাতিলের কথা জানান সাকিব। বিসিবির শর্ত মেনে পরে বিষয়টি চিঠি দিয়ে জানান তিনি। চিঠিতে চুক্তি বাতিল করার কথা উল্লেখ করেছেন সাকিব।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিবির এক পরিচালক। তিনি বলেন যে, বিসিবি সাকিবের কাছ থেকে মৌখিক সিদ্ধান্ত পেয়েছে। লিখিত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে। এর কিছু পরই সাকিবের লিখিত সিদ্ধান্ত বিসিবির হাতে পৌঁছায়। ফলে এশিয়া কাপের দলে জায়গা পেতে ও অধিনায়কত্ব করতে তার আর কোনো বাধা থাকল না। বিসিবি শুক্রবার এশিয়া কাপের দল ঘোষণা করবে।

গত ২ আগস্ট সাকিব নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা দেন নিউজ বেটউইনার নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এর পর থেকে শুরু হয় বিতর্ক, সাকিব বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেছেন; বিসিবির নীতিমালায় যা অবৈধ। নিউজ বেটউইনার তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে যে তারা শুধু একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বেটিংয়ের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই।

তারপরও বিসিবি সভাপতি বোর্ড সভা শেষে সংবাদমাধ্যমকে বলেন যে, সাকিব বেট উইনারের সঙ্গে চুক্তি ছিন্ন না করলে এশিয়া কাপের দলে জায়গা হবে না তার। এমনকী বিসিবির সঙ্গে তার চুক্তিও বাতিল করা হতে পারে। এরপরই সাকিব বিসিবিকে বেটউইনারের সঙ্গে চুক্তি থেকে সরে আসার কথা বিসিবিকে জানিয়েছেন।

বিসিবি গত শুক্রবারের বোর্ড সভাতেই সাকিবকে অধিনায়ক করে দল ঘোষণা করতে চেয়েছিল। তবে সাকিবের সঙ্গে বেটউইনারের চুক্তির বিষয়টি নিষ্পত্তি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করেছে তারা।

নওগাঁর পত্নীতলায় কাঁচা মরিচের ডাবল সেঞ্চুরি

নওগাঁর পত্নীতলায় কাঁচা মরিচের ডাবল সেঞ্চুরি

নওগাঁর পত্নীতলায় কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ২০০ টাকা যা কী না কাঁচা মরিচের দরদামে ডাবল সেঞ্চুরি। শুধু কাঁচা মরিচই নয় কাঁচা বাজারেও ছড়িয়ে পড়েছে অস্থিরতা প্রতি কেজি করলা ৮০ টাকা, বেগুন, কচুর বই ৫০ টাকা, শসা ৪০ টাকা, ডিমের হালি ৩৮-৪০ টাকা, পটল ৫০ টাকা।

১০ টাকার মিনি সাবান বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকা, ৫ টাকার কোন কোন বিস্কিটের মিনি প্যাকও বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকায়। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের পাশাপাশি প্রসাধনী, ওষুধ, পরিবহন ভাড়া সব জায়গাতে দ্রব্যমূলের ঊর্ধগতি পাগলা ঘোড়া ছুটেই চলেছে।

ভোক্তাদের অভিযোগ সকলেই সুযোগ নিচ্ছে এমনকি পানির দামে জিনিস কিনলাম এটাও বলা যাবে না, কারন দাম বেড়েছে প্যাকেটজাত পানিরও। কোথাও স্বস্তি নেই। ভোক্তাদের আরো অভিযোগ- সব কিছুর ব্যয় বেড়েছে কিন্তু আয় বাড়েনি, চাকরিজীবীদের বেতন বাড়েনি।

এদিকে ভ্যান ভাড়া নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সমিতি থেকে পৌরসভার মেয়র বরাবর আবেদন করেছে, অথচ তাদের আবেদনের ভাড়ার চাহিদা তারা যা নির্ধারন করতে আবেদন পূর্বে থেকেই তারা এই ভাড়ায় নিয়ে আসছেন।

বেড়েছে চাল, ডাল, মসলার দাম। বিক্রেতাদের মতামত মোকাম (আড়ৎ), কোম্পানি বা কৃষকের নিকট থেকে যে মূলে তারা পাইকারী নিচ্ছেন তা থেকে সামান্য লাভেই তারা বিক্রি করছেন।

রুবাইত হাসান, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি

পবিপ্রবিতে আন্তঃ অনুষদীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২ উদ্বোধন

পবিপ্রবিতে আন্তঃ অনুষদীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২ উদ্বোধন

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) আন্তঃঅনুষদীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ই আগস্ট) বিকেল ৩ টায় উপাচার্য প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত শুভ উদ্বোধন করেন।বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উদ্যোগে উক্ত টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়।

এবারের টুর্নামেন্টে দুইগ্রুপে পাঁচটি করে মোট দশটি দল অংশগ্রহণ করছে।উদ্বোধনী দিনে দুইটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদ এবং মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের মধ্যকার উদ্বোধনী ম্যাচটি ২-২ গোলে ড্র হয়। পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান অনুষদ এবং পশুপালন অনুষদের মধ্যকার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটিও ১-১ গোলে ড্র হয়।

সহযোগী অধ্যাপক সুজন কান্তি মালির সভাপতিত্বে আন্তঃঅনুষদীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটি-২০২২ এর সদস্য সচিব মুহাম্মদ আবু হানিফের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বলেন, পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক চর্চা অত্যন্ত ভালো। খেলাধুলা শুধু শারীরিক সুস্থতা আনে না এটি মন ও মানসিকতার উন্নতি সাধন করে।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর এবিএম মাহবুব মোর্শেদ খান, সহযোগী অধ্যাপক সুপ্রকাশ চাকমাসহ অন্যান্য শিক্ষক, শিক্ষার্থী,কর্মকর্তা এবং কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

টুর্ণামেন্টে গ্রুপপর্বে মোট ২০টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২১ শে আগস্ট গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ হবে। ২২ ও ২৩ শে আগস্ট টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। ২৫শে আগস্ট টুর্নামেন্টের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

মোঃ শাহিন আলম, পটুয়াখালী প্রতিনিধি

চরভদ্রাসনে অস্ত্রসহ ৯ ডাকাত গ্রেফতার

চরভদ্রাসনে অস্ত্রসহ ৯ ডাকাত গ্রেফতার

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করেছেন।বৃহস্পতিবার (১১ই আগষ্ট) দুপুরে ফরিদপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন জেলা পুলিশ।

ফরিদপুর অতিরক্তি পুলিশ সুপর জামাল পাশা, হেলাল উদ্দিন ভুইয়া, ফরিদপুর সদর সার্কেল সুমন রঞ্জন সরকার ও চরভদ্রাসন থানার অফিসার ইনচার্জ মিন্টু মন্ডল উপস্থিত থেকে প্রেস রিলিজ প্রদান করেন। প্রেস ব্রিফিং এ জানা যায়, উক্ত অভিযানে একটি পিস্তল ও দেশীয় অস্ত্র সহ ডাকাতিকালে লুটে নেওয়া কিছু মালামালও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আটক আন্তঃ জেলা ডাকাত দলের ৯ সদস্য হলো- চরভদ্রাসন উপজেলার বিএস ডাঙ্গী গ্রামের তোতা বেপারীর ছেলে রুবেল বেপারী (৩৪), একই গ্রামের মোতালেব পত্তনদারের ছেলে নাঈম পত্তনদার (২২), মৃত পরেশ সরকারের মেয়ে প্রার্থনা সরকার (২৭), চরসর্বান্দিয়া গ্রামের গোলাম মওলা মুন্সির ছেলে ইমরান মুন্সি (২৬), সালথা থানার শুকুর মাহমুদ মোল্যার ছেলে জিহাদ মোল্যা (২৪), মধুখালি উপজেলার হোসেন গাজীর ছেলে মামুন শেখ (২৭), ভাটি কানাইপুর গ্রামের অনন্ত কর্মকার (২২) বোয়ালমারি উপজেলার ইউসুফ মোল্যার ছেলে বিল্লাল মোল্যা (২৪) রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার দুলু শেখের ছেলে দেলোয়ার শেখ (৩৫)।

আরো জানা যায়, গত ২ আগস্ট দিবাগত রাত আড়াইটায় চরভদ্রসান উপজেলা সদরে এমকে ডাঙ্গী গ্রামের এক সৌদী প্রবাসী ঘরের জানালার গ্রীল কেটে একদল ডাকাত ঢুকে গৃহিনীকে হাত পা বেঁধে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুটের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গৃহিনী সাবিনা ইয়াছমিন বাদী হয়ে চরভদ্রাসন থানায় একটি মামলা করেন। মামলা নং-০২, তাং-৩/৮/২০২২খ্রি.।

মামলা রুজুর পর ফরিদপুর সদর সার্কেল সুমন রঞ্জন সরকারের নেতৃত্বে এবং থানা অফিসার ইনচার্জ মিন্টু মন্ডলের পরিচালনায় পুলিশ একটি সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে ৯ ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়। ডাকাতদের সঙ্গে থাকা একটি দেশীয় পিস্তল, একটি ছ্রান দ্যা, একটি চাইনিজ কুড়াল দুইটি সেলাই মেশিন রেঞ্জ, ১৩ আনা গলিত স্বর্ন ও তিন আনা স্বর্ণালঙ্কার ও একটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

উল্লেখ্য, ডাকাত রুবেলের নামে খুন ডাকাতি ও চুরি সহ ৫টি মামলা রয়েছে, ডাকাত রিয়াজুলের নামে খুন ডাকাত ও অস্ত্র সহ ৫টি মামলা, ডাকাত ইমনের নামে খুন ডাকাতি, ধর্ষণ ও চুরি সহ ৫টি মামলা রয়েছে, ডাকাত মামুনের নামে খুন ডাকাতি ও চুরি সহ আরও ৩টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শরিফপুর ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা

মামলা

জামালপুর থেকে অপহরণের ৬ দিন পর উন্নয়ন সংঘের কর্মী জুয়াইরিয়া নিপাকে অচেতন অবস্থায় নেত্রকোণার পূর্বধলা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সদর উপজেলার শরিফপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলম আলীসহ ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগীর পরিবার। অপহৃতা নিপা জামালপুর সদর উপজেলার শরিফপুরের নুরুল আমীনের মেয়ে।

মামলার বিবরণ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, শুক্রবার সকালে উন্নয়নে সংঘের এক মাঠকর্মীর সাথে দেখা করার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন নিপা। তারপর আর বাড়ি ফেরেন নি। ঘটনার ৬ দিন পর বুধবার (১০ আগস্ট) রাতে নেত্রকোণার পূর্বধলার নির্জনস্থান থেকে তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধারের পর তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিপার মা মোছা: নুরুন্নাহার জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শরিফপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলম আলীর চাচাতো ভাই মামুন নিপার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তারপর নিপাকে বিয়ে করতে নানা টালবাহানা শুরু করেন তিনি। গত ৩ মাস আগে সালিশ-বৈঠকে আপস-মীমাংসার মাধ্যমে নিপার সঙ্গে মামুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর শুরু হয় নিপার উপর মামুনের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। মামুন ও তার চাচাতো ভাই চেয়ারম্যান আলম আলী নিপাকে অপহরণ করে হত্যার উদ্দেশ্যে নির্যাতনের পর মৃত ভেবে নেত্রকোণার পূর্বধলার নির্জনস্থানে ফেলে রেখে যান। তিনি অপহরণ ও নির্যাতনের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এ বিষয়ে উন্নয়ন সংঘের পরিচালক (মানবসম্পদ বিভাগ) জাহাঙ্গীর সেলিম জানান, গত বৃহস্পতিবার বিশ্ব মাতৃদগ্ধ দিবসের প্রোগ্রামেও নিপা উপস্থিত ছিলেন। শুক্রবার সকালে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। মধ্যযুগীয় কায়দায় নিপাকে অপহরণ এবং হত্যা চেষ্টাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু তদন্তসাপেক্ষে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, যত প্রভাবশালীই হোক আইনের ফাঁক গলে যেন অপরাধীরা বেরিয়ে যেতে না পারে। এ ঘটনার সুষ্ঠু ও ন্যায়বিচার না হলে কঠোর সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

জামালপুর সদর থানার ওসি কাজী শাহনেওয়াজ ইমন জানান, এ ঘটনায় নিপার মা নূরুন্নাহার বাদী হয়ে শরিফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

কোটি টাকার ২টি বিদ্যুতের খুঁটি নদী গর্ভে বিলীনের শংকা

কোটি টাকার ২টি বিদ্যুতের খুঁটি নদী গর্ভে বিলীনের শংকা
কোটি টাকার ২টি বিদ্যুতের খুঁটি নদী গর্ভে বিলীনের শংকা

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে ধলেশ্বরী নদীর পানির তীব্র স্রোতে দুইটি ৩৩হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের খুঁটি ভাঙনের মুখে পড়েছে।প্রায় কয়েক বছর ধরে উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের ডাকেরহাটি ও গোয়ালখালি এই দুটি গ্রামের বাড়ির ভাঙার আশঙ্কা সহ হুমকির মুখে ৩৩হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের খুঁটি।

নদী ভাঙন কবলিত এলাকার মানুষ আতংকের মধ্যে থাকলেও এবং প্রশাসন একটু সুদৃষ্টি দিলেও বিদ্যুতের খুঁটি দুটির ব্যাপারে কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি কেউ বলে জানালেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের ধলেশ্বরী নদীর পানির তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় ভাঙনে দিশেহারা তুলসীখালী ব্রীজ সংলগ্ন এলাকা থেকে গোয়ালখালি ও ডাকেরহাটি গ্রামের অনেক মানুষ। এতে গত দুই বছর ধরে ক্রমাগতভাবে ভাঙনের মুখে পড়েছে বিভিন্ন ফসলি জমি, বসতবাড়ি, দুইটি ৩৩হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের খুঁটি। জানা যায়, গত বছরে প্রায় ৫০টির উপরে ঘর নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে চিত্রকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল হুদা বাবুল ডেইলি নববার্তাকে বলেন- গোয়ালখালি ও ডাকেরহাটি গ্রামের অনেক ঘরবাড়ি ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে গেছে ইতোমধ্যে।গত কয়েকমাস আগে ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করলে আমাদের সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সহযোগিতায় ভাঙন রোধে কিছু কাজ করা হলেও পুরোপুরি কাজ করা যায়নি।

এছাড়া কোটি কোটি টাকার বিদ্যুতের খুঁটি দুটি বিপদজনক অবস্থায় আছে ভাঙন কবলিত এলাকায় যে কোন সময় মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।আমি একাধিকবার দরখাস্ত দিয়েছি কিন্ত এখনো কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি স্থানীয় প্রশাসন।

বেটউইনার না ছাড়লে দল থেকে বাদ সাকিব : পাপন

বেটউইনার না ছাড়লে দল থেকে বাদ সাকিব : পাপন

বেটিং সাইট বেট উইনারের সহযোগী প্রতিষ্ঠান নিউজ বেট উইনারের সঙ্গে চুক্তি শেষ না করলে এশিয়া কাপের দলে রাখা হবে না সাকিব আল হাসানকে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিসিবির সভা শেষে এমনটা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

সম্প্রতি নিউজ বেট উইনারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন সাকিব। এটি অনলাইন পোর্টাল হলেও এর মূল সংস্থা অনলাইন বেটিংয়ের সঙ্গে জড়িত। বেটিংয়ের বিষয়ে বিসিবি জিরো টলারেন্স নীতির পক্ষে। সে কারণে সাকিবের ব্যাপারেও কঠোর হতে দ্বিধা করবে না বোর্ড, এমনটা জানিয়েছেন পাপন। বিসিবি এরই মধ্যে চুক্তি থেকে সরে আসার আহ্বান করে সাকিবকে চিঠি দিয়েছে।

পাপন সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ বিষয়ে আমাদের জিরো টলারেন্স, আগেও যেমনটা বলেছি। সাকিবের কাছে আমরা চিঠি দিয়েছি। চিঠির উত্তর আজকের ভেতর পেয়ে যাব। এরপর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ওর উত্তর না জেনে কিছুই বলা যাচ্ছে না।’ সাকিবের উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছে বিসিবি। তার উত্তর জেনেই শুক্রবার ঘোষণা করা হবে এশিয়া কাপের দল।

আর চুক্তি থেকে সরে আসতে না পারলে শুধু দল নয়, বিসিবির চুক্তি থেকেও সরিয়ে দেয়া হতে পারে সাকিবকে; এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন পাপন। তিনি যোগ করেন, ‘বেট উইনার থেকে সম্পূর্ণভাবে সরে আসতে হবে। সম্পূর্ণভাবে সরে আসতে না পারলে বোর্ডের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক থাকবে না। দল চুক্তি এসব তো পরের কথা।’

গত ২ আগস্ট সাকিব নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা দেন নিউজ বেটউইনার নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এর পর থেকে শুরু হয় বিতর্ক, সাকিব বেটিং কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেছেন; বিসিবির নীতিমালায় যা অবৈধ। নিউজ বেটউইনার তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে যে তারা শুধু একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বেটিংয়ের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই।

মানুষ মরেও শান্তিতে নাই

শিবালয়ে কষ্কাল চুরির ঘটনায় এলাকাবাসীর দুঃখ প্রকাশ

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার উথলী এলাকার কাতরাসিন কবরস্থান থেকে রাতের আঁধারে কবর খুঁড়ে কঙ্কাল চুরি করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (১১ আগষ্ট) সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পার্শ্বে উথলী সংযোগ মোড় কাতরাসিন কবরস্থানের আশপাশের লোকজন এ ঘটনাটি দেখতে পেয়ে শিবালয় থানা পুলিশকে খবর দেয়।

কঙ্কাল চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করেন শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিন। ঘটনা জানাজানি হলে গোরস্থানে মানুষের ঢল নামে। কাতরাসিন এলাকার ফজলুল হক জানান , গত ৭ মাস আগে ওই গোরস্থানে কবর দেয়া তার মা’য়ের লাশ চুরি হয়েছে।

এ ঘটার সাথে জড়িতদের দ্রুত শাস্তির দাবি করেন তিনি। স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে দুষ্কৃতকারীরা কতরাসিন কবরস্থানের কয়েকটি নতুন ও পুরাতন কবর খুঁড়ে কঙ্কাল চুরি করে নিয়ে যায়। কঙ্কাল চুরির পর কবর পুনরায় ঢেকে রাখে গেছে। কবরস্থানের সাধারণ সম্পাদক দিদার সিকদার জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত্রীতে কয়েকটি কবর খুঁড়ে দুষ্কৃতিকারীরা লাশ চুরি করে নিয়ে যায়। পুনরায় তা আবার ঢেকে রেখে যায়। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক’ মানুষ মরেও শান্তি নাই। দ্রুত সময়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তিনি।

শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিন জানান, কবরস্থান থেকে কঙ্কাল চুরির বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে সাব ইন্সপেক্টর সানোয়ার হোসেনসহ পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত একটি কঙ্কাল চুরি যাওয়া কবর সনাক্ত করা হয়েছে ‌।‌‌ অন্যান্য গুলো সনাক্তের চেষ্টা চলছে। দুর্বৃত্তরা কঙ্কাল চুরি একটি সঙ্ঘবদ্ধ চক্র। এদের ধরতে পুলিশ কাজ করছে। যতদ্রুত সম্ভব এদের আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে।

রিকশাওয়ালার স্ত্রীকে ধর্ষণ, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আটক

রিকশাওয়ালার স্ত্রীকে ধর্ষণ, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আটক

জামালপুরে ভাড়াটিয়া গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে বাড়ির মালিক উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই কৃষি কর্মকর্তার নাম মো. নুরুজ্জামান (৫৪)। তিনি সদর উপজেলার শরিফপুর ইউনিয়নে কর্মরত।

জামালপুর সদর থানার ওসি কাজী শাহনেওয়াজ ইমন জানান, সদর উপজেলার অনন্তবাড়ি গ্রামে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের তিনতলা ভবনের দ্বিতীয় তলায় ভাড়া থাকেন এক রিকশা চালকের পরিবার। বাড়ির মালিক নুরুজ্জামানের স্ত্রী সন্তান ময়মনসিংহ শহরে থাকায় তাকে বিভিন্ন সময় রান্না করে দিতেন ওই গৃহবধূ। গত ১৪ মাস ধরে ভাড়ায় থাকা ওই গৃহবধূকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছেন তিনি। সর্বশেষ গত ৭ আগস্টও ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

তিনি আরও জানান, বুধবার (১১ আগস্ট) দুপুরে বাড়ির একটি কক্ষে আটকে রেখে পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টা চালালে ওই গৃহবধূ ৯৯৯-এ ফোন দেন। পরে বুধবার রাত সাড়ে আটটায় তাকে গ্রেপ্তার করে সদর থানার পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন ওই গৃহবধূ।