লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজের একদিন পর সেই ৪ কিশোরী উদ্ধার

লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজের একদিন পর সেই ৪ কিশোরী উদ্ধার

নানার বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হওয়া ১দিন পর চার কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (৮ মে) সন্ধ‍্যায় ৬টার দিকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের আটিয়াতলী গ্রামের জেলখানা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।উদ্ধারকৃতর চারজনই সম্পর্কে খালাতো বোন। রাত ৮টার দিকে পুলিশ সুপার ডা. এ. এইচ. এম কামরুজ্জামান এক প্রেস বিফিং বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, উদ্ধারকৃতরা জানায় বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে তারা বাড়ি থেকে বের হয়। তাদের উদ্দেশ্যে ছিল ঢাকা যাওয়ার। এর আগে শনিবার (৭ মে) সকাল ৮টার দিকে জেলার কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের চরবসু গ্রামের বাড়ি থেকে বের হয়ে তারা নিখোঁজ হন

পরে শনিবার রাতে কমলনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করে ওই চার কিশোরীর দাদী আকলিমা বেগম। থানায় জিডি করার পর তাদের উদ্ধার অভিযানে নামে পুলিশ। রোববার দুপুরে নিখোঁজ তরুণীদের বাড়িতে যান জেলা পুলিশ সুপার এএইচএম কামরুজ্জামানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকতারা। এ সময় নিখোঁজদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন পুলিশ সুপার।

জিডি সূত্রে জানা যায়, সামিয়া আক্তার নিহা তার নানার বাড়িতে যাওয়ার উদ্দেশে আরও তিন চাচাতো বোনকে সঙ্গে নিয়ে শনিবার সকালে ঘর থেকে বের হয়। এরপর থেকে তাদের আর কোনো খোঁজ মেলেনি। তারা নানার বাড়িতেও যায়নি।

নিখোঁজ জোবায়দা চরবসু গ্রামের মো. ইব্রাহিমের মেয়ে ও চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। শিমু মৃত আবুল খায়ের চুন্নুর মেয়ে ও ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। মিতু একই বাড়ির জয়নাল আবেদিনের মেয়ে ও পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী এবং নিহা শামছুল আলমের মেয়ে ও ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। তারা সবাই একই এলাকার বাসিন্দা।