পর্দা নামল বইমেলার, বিক্রি সাড়ে ৫২ কোটি টাকা

লেখক, প্রকাশক, কবি, সাহিত্যিক ও বইপিপাসু ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের এক বছরের অপেক্ষা প্রহরে বসিয়ে বিদায় নিচ্ছে এবারের অমর একুশের বইমেলা। শেষ দিন আজ (বৃহস্পতিবার) বেলা ১১টা থেকে শুরু হয় বইমেলা, চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। দুপুর গড়াতেই বাংলা একাডেমি থেকে শুরু করে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে উপচে পড়ে বইপ্রেমী মানুষের ঢল। উচ্ছ্বল পা গুলো ছুটে বেড়ালেও হৃদয়ে বাজতে থাকে বিসর্জনের বাজনা, কেননা আজই শেষ হচ্ছে প্রাণের এ মেলা।

এবার নতুন একটি রেকর্ড গড়ে শেষ হতে চলেছে ২০২২ সালের অমর একুশে বইমেলা। এবারের বইমেলায় ৫২ কোটি ৫০ লাখ টাকার বই বিক্রি হয়েছে, যা গত বছরের তুলনায় প্রায় ১৭ গুণ বেশি। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) বিকেলে সমাপনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান মেলার সদস্য সচিব ও বাংলা একাডেমি পরিচালক জালাল উদ্দিন আহমেদ।

তিনি জানান, এবারের মেলায় কেবল বাংলা একাডেমির এক কোটি ৩৫ লাখ টাকার বই বিক্রি হয়েছে। আর পুরো মেলায় বিক্রি হয়েছে ৫২ কোটি ৫০ লাখ টাকার বই। প্রকাশকদের হিসাব অনুযায়ী গত বছর মেলায় তিন কোটি টাকার বই বিক্রি হয়েছিল। সে অনুযায়ী এবার ১৭ গুণ বেশি টাকার বই বিক্রি হয়েছে।

জালাল উদ্দিন বলেন, এবারের মেলায় প্রকাশিত হয়েছে কির হাজার ৪১৬টি নতুন বই। বাংলা একাডেমি পরিচালিত জরিপ অনুযায়ী এবারের মেলায় মানসম্মত বই প্রকাশিত হয়েছে ৯০৯টি, যা মেলায় প্রকাশিত নতুন বইয়ের হিসাবে ২৫ শতাংশ। সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত রয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা প্রমুখ।

করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বছর অমর একুশে বইমেলা শুরু হয় ১৫ ফেব্রুয়ারি। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের মেলা ১৪ দিন হওয়ার কথা থাকলেও খোদ প্রধানমন্ত্রী বইমেলা এক মাস ব্যাপী করাতে সায় দেন।