পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ডাক্তারের অবহেলায় এক মায়ের মৃত্যু

পটুয়াখালী সদর হাসপাতাল

পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় জন্ডিস ও পিত্তথলির ব্যথা নিয়ে ভর্তি হওয়া এক রোগীর মৃত্যুু হয়েছে। শনিবার ১৯ মার্চ রাত ১১ টার সময় পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত সালমা বেগম (৩৫)। তিনি মরিচবুনিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে মরিচবুনিয়া গ্রামের মজিবর হাওলাদারের স্ত্রী, সালমা বেগমের ক্ষুব্ধ স্বজনরা তার মৃত্যুর জন্য হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মোঃ আবুবক্কর কে দায়ী করেন। এদিকে চার জননীর মৃত্যুর বিষয়ে তার স্বজন ও হাসপাতালের পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।

নিহতের স্বামী মজিবর হাওলাদার জানান, শনিবার বিকেলে জন্ডিস ও পিত্তথলির ব্যাথা সমস্যা নিয়ে তাকে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, কর্তব্যরত ডাক্তার মোঃ আবুবক্কর আমার স্ত্রীকে কোন প্রকার সেবা দেয়নি, উল্টো আমাদের সাথে দুর্ব্যবহার করে চিকিৎসা না দিয়ে রোগীর কাছ থেকে বাহিরে বেরিয়ে যায়, তার কিছুক্ষণের মধ্যেই আমার স্ত্রী মৃত্যুবরণ করেন, মৃত্যুর পর তাকে আইসিইউতে পাঠানো হয়।

কর্তব্যরত চিকিৎসক মোঃ আবুবকর জানান, আমি এ ব্যাপারে কিছু জানি না, আমি তত্ত্বাবধায়ক এর সাথে কথা বলে আপনাদের জানাবো, তিনি দায় এড়ানোর জন্য ছলে-বলে-কৌশলে বিষয়টি এড়িয়ে যান।

এ ব্যাপারে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার মোহাম্মদ আবদুল মতিন জানান, ভুক্তভোগির পরিবার থেকে অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে দাপ্তরিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।