নগরকান্দায় কেএম ওবায়দুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

ফরিদপুরের নগরকান্দায় মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, গণতন্ত্রের সিংহ পুরুষ, বিএনপির সাবেক মহাসচিব, সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপির সাবেক মহাসচিব, জননেতা মরহুম কে এম ওবায়দুর রহমানের ১৫ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার বিকালে লস্করদিয়া ইউনিয়নের শামা ডেইরী ফার্ম মাঠে উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি লস্করদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান বাবুল তালুকদারের সভাপতিত্বে, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান মুকুলের উপস্থাপনায় স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির ভাইস- চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান।

ফরিদপুর, নগরকান্দা, সালথা ও কৃষ্ণপুর বিএনপির আয়োজনে স্মরণ সভায় প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক, ওবায়েদ কন্যা শামা ওবায়েদ ইসলাম রিংকু।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ মোদারেছ আলী ইছা। ফরিদপুর জেলা যুব দলের সাবেক সভাপতি আফজাল হোসেন খান পলাশ, জেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক জুলফিকার হোসেন জুয়েল, রাজবাড়ি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এ্যাডঃ লিয়াকত আলী, শরীয়তপুর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ- সভাপতি দুলাল খান, নগরকান্দা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত আলী শরীফ, নগরকান্দা যুবদল সভাপতি আলিমুজ্জামান সেলু, যুবদল নেতা তৈয়াবুর রহমান মাসুদ, এ্যাডঃ জুয়েল মুন্সী সুমন, হেলালউদ্দীন হেলাল, শ্রমিক দল নেতা মাসুদুর রহমান মাসুদসহ বিএনপি ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

স্মরণ সভায় বক্তারা মরহুম জননেতা কেএম ওবায়দুর রহমানের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের উপর আলোচনা করে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করেন। এছাড়াও বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্তে মুক্তির দাবী জানানো হয়। আগামী রমজান মাসে খালেদা জিয়াসহ তার পরিবারের সবাইকে নিয়ে যেন রোজা রেখে ইফতার করতে পারে। তাই রমজানের আগেই খালেদা জিয়াসহ বিএনপির সকল বন্দী নেতা কর্মীদেরকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানানো হয় সরকারের প্রতি।