দক্ষিণ আফ্রিকায় ইতিহাস গড়ল বাংলাদেশ

দক্ষিণ আফ্রিকায় ঐতিহাসিক সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। বাভুমার দলকে তাদেরই মাটিতে সিরিজ হারিয়ে ক্রিকেট ইতিহাসে নতুন অধ্যায় লিখল তামিমের দল। স্বাগতিকদের ৯ উইকেটে উড়িয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতল টাইগাররা।

কদিন আগেও শক্তিশালী ভারত খাবি খেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে। স্বাগতিকদের কাছে পাত্তাই পায়নি সফরকারীরা। শুধু ভারতই নয় দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে তাদেরকেই হারানোর ইতিহাস খুব কম দলেরই আছে। কিন্তু বাংলাদেশ ইতিহাসের পাতায় নিজের নামটা লিখে রাখল স্বর্ণাক্ষরে।

তাসকিনের তাণ্ডবের পর লিটন-তামিমের উদ্বোধনী জুটিতেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় টাইগাররা। এই জয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথমবারের মতো সিরিজ জয়ের স্বাদ পেল সাকিব-তামিমরা।

বাংলাদেশের কাজটা সহজ গেছে মূলত বোলারদের সৌজন্যে, ৫ উইকেট নিয়ে যাতে মূল ভূমিকা রেখেছেন তাসকিন আহমেদ। চতুর্থ বোলার হিসেবে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের হয়ে একাধিকবার ৫ উইকেট নিয়েছেন এ ফাস্ট বোলার। তাসকিন-শরিফুল-সাকিবদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকার কোনো ব্যাটসম্যান। মাত্র ১৫৪ রানেই শেষ হয়ে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস।

লক্ষ্য তাড়া সহজ হয়ে যায় তামিম-লিটনের উদ্বোধনী জুটিতেই। অর্ধশতক থেকে ২ রান দূরে থামেন লিটন। কেশব মহারাজকে ড্রাইভ করতে গিয়েছিলেন, তবে ঠিকঠাক তুলতে পারেননি।

শর্ট কাভারে বাভুমার হাতে ধরা পড়েন তিনি। ৫৭ বলের ইনিংসে লিটন মেরেছেন আটটি চার। ১২৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সাকিবকে নিয়ে বাকি কাজটা সারেন তামিম। দলের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন তামিম। ১৪ চারে ৮২ বলে ৮৭ রান করে অপরাজিত ছিলেন টাইগার অধিনায়ক। অন্যদিকে সাকিব করেন ২০ বলে ১৮ রান।