ঢাকা কলেজ বন্ধ ঘোষণা, মানছেন না শিক্ষার্থীরা

ঢাকা কলেজ

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঢাকা কলেজের সব হল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলের মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৫ মে পর্যন্ত হল বন্ধ থাকবে।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বেলা ৩টার দিকে ঢাকা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক এ টি এম মইনুল হোসেন স্বাক্ষরিত অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়। এদিকে সংঘর্ষের বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, কিছুক্ষণের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে। তিনি বলেন, আমরা মনে করি কিছুক্ষণের মধ্যেই এটা কুল ডাউন হবে। যারা এগুলো ঘটিয়েছেন তাদের নিশ্চয়ই আইনের আওতায় আনা হবে।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আইন-শৃঙ্খলা বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে কথা বলেন তিনি। এত দীর্ঘ সময় পরও নিউ মার্কেট এলাকায় সংঘাত কেন নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা আশা করছি, কিছুক্ষণের মধ্যেই এ ঘটনা কুল ডাউন হবে। যারা এ ঘটনার জন্য দায়ী তাদের আইনের মুখোমুখি হতে হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ৪০ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার রাতের পর মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে পুনরায় এ ধাওয়া পাল্টাধাওয়ার ঘটনা শুরু হয়। সংঘর্ষের খবর পেয়ে দুপুরে সাইন্সল্যাব থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে আসতে চাইলে পুলিশ তাদের বাঁধা দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারশেল-কাদানে গ্যাস নিক্ষেপ করেছে পুলিশ।এতে কলেজের ভেতরে আটকা পরেছেন কয়েকশ শিক্ষার্থী।

ঘটনাস্থলে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী ও নিউ মার্কেটের কর্মীরা মুখোমুখী অবস্থান নিয়ে ইট-পাটকেল ছুড়েছেন। ছাত্রদের মধ্যে অনেককে হেলমেট পরে হাতে লাঠি নিয়ে সংঘর্ষে জড়াতে দেখা গেছে। ইটের আঘাতে বেশ কয়েকজনকে আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীরা ওভার ব্রিজের নিচে অবস্থান নেয়। অন্যদিকে চন্দ্রিমা মার্কেটের সামনে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীরা। বেলা সোয়া ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে অন্তত তিনটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। সকাল থেকে নিউমার্কেট এলাকা অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা।তবে পুলিশি অ্যকশনের পর পরিস্থিতি অনেকটা শান্ত এবং থমথমে।

সাধারণ মঙ্গলবার নিউ মার্কেট এলাকায় সাপ্তাহিক ছুটি থাকে। তবে রমজান উপলক্ষে চাঁদ রাত পর্যন্ত প্রতিদিনই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মার্কেট খোলা রাখার ঘোষণা দিয়েছিল ব্যবসায়ীরা। এর আগে সোমবার (১৮ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। উত্তেজনা চলে ভোর পর্যন্ত। এ ঘটনার জের ধরে নিউমার্কেট খুলতে না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।