কুড়িগ্রামে প্রতিপক্ষকে মারতে গিয়ে কাঁচে পা কেটে যুবকের মৃত্যু

তাহেরপুর পৌরসভায় বৃদ্ধর রহস্য জনক মৃত্যু

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনায় গ্লাসে পা কেটে তাজুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আবু তালেব নামে একজকে পুলিশ হেফাজতে হিয়েছে। গতকাল বুধবার (২৭ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ভাঙামোড় ইউনিয়নের নেওয়াশি বাজারে ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত তাজুল ইসলাম উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের ৩নং রাবাইতারী ওয়ার্ডের আজাহার আলী ওরফে কাচুয়া মহাজনের ছেলে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বুধবার বিকালে নেওয়াশি বাজারে তাজুল ইসলামের চাচাতো ভাই সাবেক ইউপি সদস্য হাফিজুর রহমানের সাথে একই ইউনিয়নের খন্দকার পাড়ার ইব্রাহিম আলীর ছেলে আবু তালেবের (৩৫) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তর্ক-বিতর্ক ও পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

ঝগড়া থামাতে স্থানীয় লোকজন আবু তালেবকে আল-আমিন নামে একটি ফার্নিচারের দোকানে ঢুকিয়ে দেয়। হাতাহাতির খবর পেয়ে তাজুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে আবু তালেবের সাথে তর্ক-বিতর্কে লিপ্ত হয়। এসময় দোকানের মধ্যে দুজনের মধ্যে হাতাহাতি ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এরই এক পর্যায়ে তাজুলের লাথি লেগে দোকানের গ্লাস ভেঙ্গে তার পা কেটে যায়।

সেখানে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাজুল ইসলাম অসুস্থ্য হয়ে পরলে প্রথমে তাকে নাগেশ্বরী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পথিমধ্যে তাজুল ইসলামের মৃত্যু হয়েছে বলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পরে পরিবারের লোকজন তাজুলের লাশ বাড়ীতে নিয়ে আসেন। খবর পেয়ে কুড়িগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নাগেশ্বরী সার্কেল) সুমন রেজা এবং ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফজলুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ ফজলুর রহমান জানান, ঘটনা তদন্তে একজনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি।