আজ শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২ | সময় : ১:১৮ অপরাহ্ণ
হোমশিক্ষাঙ্গননর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিএনএসইউ-তে পদ্মা সেতু নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

এনএসইউ-তে পদ্মা সেতু নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

সম্প্রতি, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর ইনফ্রাস্ট্রাকচার রিসার্চ এন্ড সার্ভিসেস (সিআইআরএস) এবং সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এর উদ্যোগে ‘পদ্মা সেতু: বাংলাদেশের একটি সফল প্রকৌশলী প্রচেষ্টা’ শিরোনামে এক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়।

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও সিআইআরএস এর পরিচালক অধ্যাপক ডঃ মোঃ সিরাজুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটিতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পদ্মা ব্রিজ প্রকল্পের প্রাক্তন চিফ কো-অর্ডিনেটর প্রকৌশলী মেজর জেনারেল আবু সাইদ এম মাসুদ। প্রথান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পানি ও পরিবেশ বিশেষজ্ঞ ও পদ্মা ব্রিজ প্রকল্পের প্যানেল অব এক্সপার্ট দলের সদস্য অধ্যাপক ডঃ আইনুন নিশাত। তাছাড়া, বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী কাজী ফেরদৌস ও আব্দুল মোনেম লিমিটেডের এমডি মাইনুদ্দিন মোনেম অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

পদ্মা সেতু আমাদের সমস্ত জাতির গর্ব ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। সর্বোপরি প্রকৌশল উৎকর্ষতা বিবেচনায় সারা পৃথিবীতে অনন্য। বাংলাদেশের প্রকৌশলীদের জন্য এটি একটি আত্মবিশ্বাসের প্রতীকও বটে, এখন থেকে তাঁরা অনেক বড় স্থাপনা নিজ ব্যবস্থাপনায় নির্মাণে সক্ষম। অনুষ্ঠানের শুরুতে এই ব্রিজের সাথে জড়িত ৩ জন প্রয়াত বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডঃ জামিলুর রেজা চৌধুরী, অধ্যাপক ডঃ শফিউল্লাহ, অধ্যাপক ডঃ আলমগির মুজিবুল হক ও জনাব আব্দুল মোনেম এর বিদেহী আত্মার প্রতি মাগফিরাত কামনা ও তাঁদের অবদানকে স্মরণ করা হয়।

মেজর জেনারেল আবু সাইদ এম মাসুদ তাঁর মূল প্রবন্ধে, সেতুটির বিস্তারিত ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়াদির বিশদ উপস্থাপনাসহ, সেতুটি নির্মানে নানাবিধ প্রতিবন্ধকতা ও তা সমাধানের সবিস্তার বর্ণনা করেন। উপাচার্য, আতিকুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে, উদ্বোধনের দিন সেতুটি ও তাঁর দুপাশের রাস্তা সচক্ষে দেখার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বিস্ময় প্রকাশ করেন যে, বাংলাদেশি প্রকৌশলীদের তত্ত্বাবধানে এত বড় একটি স্থাপনা এত নিখুঁতভাবে নির্মাণ জাতির জন্য একটি অনন্য মাইলফলক।

অধ্যাপক আইনুন নিশাত, যিনি সক্রিয়ভাবে যমুনা ও পদ্মা এ দুটি সেতুর সাথেই জড়িত ছিলেন, মূলতঃ নদী শাসন ও পরিবেশগত সমীক্ষা অংশের সবিস্তার বর্ণনা ও সেতুটি নির্মানের বিভিন্ন পর্যায়ে তাঁর অভিজ্ঞতা স্মৃতিচারণ করেন। প্রকৌশলী কাজী ফেরদৌসের মতে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বের কারণেই এই সেতু প্রকল্পটি সাফল্যের সাথে সমাধান করা সম্ভব হয়েছে, যা সবাইকে নিজ কাজটি ঠিকভাবে করার জন্য অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে।

পরিশেষে, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিং এর ডিন অধ্যাপক ডঃ জাভেদ বারী ও সিভিল এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডঃ নাজমুল ইসলাম সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

আরও পড়ুন
- Advertisment -

আলোচিত সংবাদ